Dhaka, Tuesday, 11 August 2020

গবেষণায় জানা গেলো- ডিম আগে না মুরগি!

2020-07-20 13:30:22
গবেষণায় জানা গেলো- ডিম আগে না মুরগি!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: 'ডিম আগে না মুরগি' মজার ছলে এ ধাঁধাটি একে অন্যকে জিজ্ঞেস করে থাকলেও এর সঠিক উত্তর জানা নেই কারোই। বিজ্ঞানীরাও বছরের পর বছর ধরে এই ধাঁধার সমাধান করার চেষ্টা করছেন। যুগে যুগে এই জটিল প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে নেমেছেন সমাজতত্ত্ববিদরাও। কিন্তু তারপরও যেনো রহস্যই রয়ে গেলো এর উত্তর। এ যেনো একটি গোলাকার বৃত্ত। যার কোনো শুরু বা শেষ নেই, সবটাই সমান।

তবে সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের এক গবেষণায় পাওয়া গেছে এই জটিল ধাঁধার উত্তর। বেশ কয়েক বছর ধরে এ নিয়ে গেবেষণা করেছেন মার্কিন সাংবাদিক রবার্ট ক্রুলউইচ। এতে জানা গেছে, ডিম না মুরগি- কে আগে পৃথিবীতে এসেছে। আর সেই গবেষণার ফলাফলই উঠে এসেছে মার্কিন ওয়েবসাইট এনপিআরের এক প্রতিবেদনে।

এতে বলা হয়, কয়েক হাজার বছর আগে পৃথিবীতে একটি বড় আকারের পাখি ছিলো। যা দেখতে অনেকটা মুরগির মতোই ছিলো। এমনকি মুরগির সঙ্গে পাখিটির জিনগত মিলও ছিলো। কিন্তু প্রাণিটি ঠিক মুরগি ছিলো না। বিজ্ঞানীদের ভাষ্যমতে, এটি ছিলো এক ধরনের ‘প্রোটো-চিকেন’।

প্রতিবেদনে আরো বলা হয়, পৃথিবীতে মুরগির অস্তিত্ব আসার আগে ওই পাখিটি একটি ডিম পেড়েছিলো। যাতে কিছু নতুন বৈশিষ্ট্য যোগ করেছিলো পাখিটির পুরুষসঙ্গী। এরপর কালের বিবর্তনে ওই ডিমের আরো কিছু বিবর্তন হয়। পরিবর্তনের এক পর্যায়ে ডিমটির জিন পাখিটির জিনের থেকে বেশ কিছুটা আলাদা হয়ে যায়।

বিজ্ঞানীদের দাবি, বিবর্তিত ওই ডিম ফুটে যে নতুন প্রজাতির পাখির বাচ্চা হয়েছিলো সেটিই আজকের মুরগির আদি বা পূর্বপুরুষ। এরপর বছরের পর বছর ধরে বিবর্তনের ফলে সেই মুরগির শরীরে পরিবর্তিত হয়ে আজকের মুরগিতে রূপান্তরিত হয়েছে। তবে বর্তমানের মুরগির সঙ্গে হয়তো তখনকার মুরগির অনেক পার্থক্য ছিলো।

পাখির ডিম থেকে মিউটেশনের মাধ্যমে মুরুগির আদি পুরুষের জন্ম হওয়ায় ধরে নেওয়া যায় ডিমই আগে এসেছে। কারণ ওই ডিমের আগে পৃথিবীতে কোনো মুরগির অস্তিত্ব ছিলো না। তাই মুরগি পরে এবং ডিম আগে এসেছে!





প্রযুক্তি ও উদ্ভাবন সর্বশেষ খবর

প্রযুক্তি ও উদ্ভাবন এর সকল খবর