বৃহঃস্পতিবার, ২৫শে জুলাই ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
১০ই শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দ্বিতীয়বারের মতো ঠাকুরগাঁওয়ের আম যাচ্ছে ইউরোপে

নিউজ ডেস্ক

🕒 প্রকাশ: ০৩:২০ অপরাহ্ন, ৯ই জুলাই ২০২৪

#

ছবি: সংগৃহীত

দ্বিতীয়বারের মতো ইউরোপে রপ্তানি হচ্ছে ঠাকুরগাঁওয়ের আম। এই রপ্তানির মাধ্যমে ভবিষ্যতে মানসম্মত আম বিদেশে রপ্তানির পথ সুগম হবে বলে আশা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের। নিজের বাগানের উৎপাদিত আম ইউরোপে রপ্তানি করতে পেরে খুশি বাগান মালিকরা।

বাগান মালিক আকরাম মিয়া গণমাধ্যমকে বলেন, আমার বাগানের আম বিদেশে পাঠাতে পেরে আমি অনেক গর্বিত। এই জেলার আম অনেক সুস্বাদু। আম রপ্তানি হলে জেলায় আম চাষ আরও বাড়বে।

আরো পড়ুন: গণমাধ্যমে খবর প্রকাশ, আত্মসাতের টাকা ফেরত দিলেন সেই ইউএনও!

রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠান গ্লোবাল ট্রেড লিংকের সিইও কাওসার আহমেদ রুবেল গণমাধ্যমকে বলেন, ঠাকুরগাঁয়ের আম রপ্তানি উপযোগী বলে আমরা মনে করি। তাই দ্বিতীয়বারের মতো এই জেলা থেকে আম যাচ্ছে। আমরা আশা করছি আম চাষিরা আমাদের গুণগত মানসম্পন্ন আম সরবরাহ করবে। তাহলে বিদেশে আমাদের আমের চাহিদা বাড়বে সেই সঙ্গে আমের বাজার আরও প্রসারিত হবে।

রপ্তানিযোগ্য আম উৎপাদন প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক আরিফুর রহমান জানান, গত বছরের চেয়ে এবারে দ্বিগুণ আম রপ্তানি করার পরিকল্পনা করা হয়েছে। চলতি বছরের প্রকল্পের শুরু হলো, আর এবারে ঠাকুরগাঁওয়ের আম ইউরোপের বাজারে যাবে। এর মাধ্যমে বাগান মালিকদের পাশাপাশি এই শিল্পে যারা আছেন তারা সবাই লাভবান হবেন বলে আশা করছি।

ঠাকুরগাঁও কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক সিরাজুল ইসলাম গণমাধ্যমকে বলেন, আগামী সাত দিনের মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে ইউরোপে আম পাঠানো হবে। আর ক্রমান্বয়ে জেলায় আম বাগান বাড়ছে। রপ্তানির মাধ্যমে চাষিরা অধিক মূল্যের পাশাপাশি স্থানীয় শ্রমিকদের কর্মসংস্থানের সুযোগ হবে। এতে করে জেলার অর্থনীতির পরিবর্তন আসবে।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের রপ্তানিযোগ্য আম উৎপাদন প্রকল্পের আওতায় ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ উপজেলার আম বাগানি একরাম বাগান পরিদর্শন করেন কৃষি সম্প্রসারণের প্রতিনিধিরা।  

এইচআ/ আই.কে.জে/


হলিউড আম

খবরটি শেয়ার করুন