সোমবার, ২০শে মে ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
৬ই জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রিজার্ভ বেড়ে ২০ বিলিয়ন ডলারের উপরে

নিউজ ডেস্ক

🕒 প্রকাশ: ০৮:১৮ অপরাহ্ন, ১২ই এপ্রিল ২০২৪

#

ফাইল ছবি

দেশের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ গত ১ সপ্তাহের ব্যবধানে আরও বেড়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের হিসাবে বিদেশি মুদ্রার সঞ্চায়ন স্থির হয়েছে ২৫ দশমিক ৩৮ বিলিয়ন ডলারে। আর আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) গণনায় তা দাঁড়িয়েছে ২০ দশমিক ১০ বিলিয়ন ডলারে।

সম্প্রতি কেন্দ্রীয় ব্যাংকের হালনাগাদ প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

এতে বলা হয়, গত ৩১শে মার্চ বাংলাদেশ ব্যাংকের হিসাবায়নে সঞ্চিত বিদেশি অর্থের পরিমাণ ছিল ২৫ দশমিক ১৪ বিলিয়ন ডলার। আর আইএমএফের গণনা পদ্ধতি বিপিএম-৬ অনুযায়ী তা ছিল ২০ দশমিক ১ বিলিয়ন ডলার। সেই থেকে ৮ এপ্রিল অর্থাৎ গত ১ সপ্তাহে গ্রস রিজার্ভ বৃদ্ধি পেয়েছে শূন্য দশমিক ২৪ বিলিয়ন ডলার।

এছাড়া দেশের আর্থিক খাত নিয়ন্ত্রণকারী সর্বোচ্চ সংস্থার নিট রিজার্ভের আরেকটি হিসাব রয়েছে। এটি শুধু আইএমএফকে দেয়া হয়, প্রকাশ করা হয় না। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, সেই মেথডে দেশের প্রকৃত রিজার্ভ এখন প্রায় সাড়ে ১৭ বিলিয়ন ডলার। যা দিয়ে ৩ মাসের আমদানি ব্যয় মেটানো যাবে।

মূলত, প্রতি মাসে পণ্য কেনা বাবদ প্রায় ৬ বিলিয়ন ডলার করে দায় পরিশোধ করা হয়। সাধারণত একটি দেশের ন্যূনতম ৩ মাসের আমদানি খরচের সমান রিজার্ভ থাকতে হয়। সেই মানদণ্ডে বাংলাদেশ বর্তমানে শেষ প্রান্তে রয়েছে।

অর্থনীতি বিশেষজ্ঞরা বলছেন, আলোচ্য সময়ে রেমিট্যান্স প্রবাহ এবং রপ্তানি আয় বেড়েছে। পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে এই ঊর্ধ্বমুখিতা তৈরি হয়। এছাড়া ইতোমধ্যে বাইরের ছোট দায় পরিশোধ করা হয়নি। ফলে বিদেশি অর্থের মজুত বেড়েছে।

ওআ/  আই.কে.জে

রিজার্ভ

খবরটি শেয়ার করুন