সোমবার, ২৪শে জুন ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
১০ই আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

যে মসজিদে নামাজের জন্য দেওয়া হয় কাপড়-সুগন্ধি

ধর্ম ডেস্ক

🕒 প্রকাশ: ০৪:৫৮ অপরাহ্ন, ১৭ই সেপ্টেম্বর ২০২৩

#

সৌদি আরবের দাম্মাম শহরে অবস্থিত ‘আমর বিন আল-জামুহ’ মসজিদ। ছবি : সংগৃহীত

বর্তমানে প্রায় সব মসজিদে মুসল্লিদের সুবিধার্থে লাগানো হয় শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত যন্ত্র (এসি)। মুসল্লিরা যেন আরামে নামাজ আদায় করতে পারেন সেজন্য দামি ও আরামদায়ক কার্পেটসহ আরো অনেক ব্যবস্থা রাখা হয়। তবে  সৌদি আরবের একটি মসজিদে প্রয়োজন হলে নামাজের জন্য সরবরাহ করা হচ্ছে পোশাক এবং সঙ্গে দেয়া হচ্ছে আতর বা সুগন্ধীও। 

স্থানীয় টেলিভিশন চ্যানেল আল এখবারিয়ারের বরাত দিয়ে ব্যতিক্রমী এমন উদ্যোগের খবর জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম গালফ নিউজ।

প্রতিবেদনে জানানো হয়, সৌদি আরবের দাম্মাম শহরে অবস্থিত ‘আমর বিন আল-জামুহ’ নামের মসজিদটির প্রাঙ্গনে রয়েছে পাখিদের নিরাপদ আবাসস্থলও, যা পাখিপ্রেমীদের আকৃষ্ট করে। মসজিদটি প্রায় ৪০ বছর পুরনো। 

মসজিদটির তত্ত্বাবধায়ক ইব্রাহিম আল হুকাইল বলেন, প্রথম দেখায় মসজিদটিকে নতুন বলে মনে হয়। কিন্তু এটি ৪০ বছরের পুরনো। তবে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে মসজিদটি অনেক উন্নত হয়েছে।

তিনি বলেন,আমরা এই মসজিদের কিছু মৌলিক সমস্যার সমাধান করতে পেরেছি। ওযুর স্থান ও টয়লেটের জায়গা আলাদা করা হয়েছে।

আরো পড়ুন: ক্ষুধা থেকে বাঁচতে যে দোয়া পড়বেন

মসজিদটির বাইরে থাকা পাখির ঘরের কথা তুলে ধরে ইব্রাহিম আল হুকাইল আরও বলেন, অব্যবহৃত একটি জায়গা ছিল, যেটিকে পরে পাখিদের আবাসস্থলে পরিণত করা হয়েছে। মসজিদের জানালা থেকেই পাখি দেখতে পান মুসল্লিরা, যা মসজিদের ভেতরে একটি সুন্দর পরিবেশ তৈরি করেছে।

তিনি আরো জানান, এসবের বাইরেও আমর বিন আল-জামুহ মসজিদ কর্তৃপক্ষ নামাজের জন্য মুসল্লিদের সাময়িকভাবে পরিষ্কার পোশাক সরবরাহ করে। আল হুকাইলের মতে, অনেকে ব্যায়াম করে বা সূর্যের নিচে কাজ করার পরে ঘর্মাক্ত পোশাকে মসজিদে আসতে পারেন। তাদের জন্যই কাপড় ও সুগন্ধীর ব্যবস্থা করা হয়েছে।

হুকাইল বলেন, এসব কাপড় সব সময় পরিষ্কার এবং জীবাণুমুক্ত রাখা হয়। এটি মসজিদ পরিষ্কার রাখারও একটি উপায়।

এসকে/ 


 

সৌদি আরব মসজিদ নামাজ

খবরটি শেয়ার করুন