বৃহঃস্পতিবার, ২৫শে জুলাই ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
১০ই শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

যেখানে বিয়ের আগে বরকে যৌন সক্ষমতা পরীক্ষা দিতে হয় কনের আত্মীয়াদের কাছে

নিউজ ডেস্ক

🕒 প্রকাশ: ০৩:১৩ অপরাহ্ন, ২৪শে জুন ২০২৪

#

প্রতীকী ছবি

দাম্পত্য বা যৌনজীবনের সামাজিক স্বীকৃতি হলো বিয়ে। বিয়ে একটা সামাজিক স্বীকৃতি হলেও সমাজের ধরন ভেদে বিয়ের রীতি অনেকটাই ভিন্ন। একেক সমাজে একেক রকম আনুষ্ঠানিকতার মাধ্যমে বিয়ে সম্পন্ন হয়। আর রীতির ক্ষেত্রে বেশ কিছু অদ্ভুত রীতিও প্রচলিত রয়েছে কিছু সমাজে। 

তবে আফ্রিকার উগান্ডায় এমন এক অদ্ভুত রীতি মেনে কনের বিয়ে দেয়া হয় যা জানলে চোখ কপালে উঠতে বাধ্য যে কারও!

উগান্ডার বানিয়ানকোল নামের একটি জাতির কোনো মেয়ের যখন বিয়ে ঠিক হয় তখন তার নিকটাত্মীয়াদের দায়িত্ব অনেকটাই বেড়ে যায়। পরিবারের একান্ত আপন মেয়েটিকে যে বরের হাতে তুলে দেবেন সেই বরকে যাচাইবাছাই না করলে কি চলে! 

হবু বর আসলেই যৌন মিলনের উপযুক্ত কিনা তা পরীক্ষা করে দেখার দায়িত্ব দেয়া হয় কনের নিকট আত্মীয়াদের। সাধারণত কনের ফুফু, চাচী ও খালারা এই দায়িত্ব পালন করে থাকেন। 

আর এই পরীক্ষার জন্য তারা নিজেদের বিলিয়ে দিতে বিন্দুমাত্র দ্বিধাবোধ করেন না। তারা হবু বরের সাথে বিছানায় শুয়ে পরীক্ষা নেয়ার পর সবুজ সংকেত দিলেই কেবল বিয়ের বাদ্য বেজে ওঠে। অন্যথায় ভেঙে যায় বিয়ে।        


ওআ/ আই.কে.জে

বিয়ে

খবরটি শেয়ার করুন