বৃহঃস্পতিবার, ২৫শে জুলাই ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
১০ই শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কম বয়সে স্ট্রোক হয় কেন?

স্বাস্থ্য ডেস্ক

🕒 প্রকাশ: ০১:৪৯ অপরাহ্ন, ৮ই জুলাই ২০২৪

#

প্রতীকী ছবি (সংগৃহীত)

সুস্থভাবে বেঁচে থাকার জন্য শরীরের প্রতিটি কোষে রক্ত সঞ্চালন প্রয়োজন। কারণ এই রক্তের মাধ্যমেই শরীরের কোষে কোষে অক্সিজেন পৌঁছায়। কোনো কারণে মস্তিষ্কের কোষে যদি রক্ত সঞ্চালন বাধাগ্রস্ত হয়, রক্তনালী বন্ধ হয়ে যায় বা ছিঁড়ে যায় তখনই স্ট্রোক হওয়ার ঝুঁকির সৃষ্টি হয়। এটি মস্তিষ্কের এক জটিল রোগ। এ রোগে মৃত্যুঝুঁকি থাকে। এমনকি যারা বেঁচে যান, তাদের পরবর্তীতে বিভিন্ন জটিলতা হতে পারে। সুতরাং স্ট্রোক কাদের হয় ও কেন হয়, কম বয়সীদেরও স্ট্রোক হয় কেন?  সেটা জানা জরুরি। 

স্ট্রোক কি কম বয়সে হয়

একটা সময় পর্যন্ত ধারণা ছিল, স্ট্রোক শুধু বয়স্কদেরই হয়। ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, হাই কোলেস্টেরল, ধূমপান—এগুলো স্ট্রোকের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে জড়িত। এ সমস্যাগুলো আগে বেশি বয়সে হতো বলে বয়স্ক স্ট্রোকের রোগী বেশি পাওয়া যেত। সম্প্রতি এ ধারা পরিবর্তন হয়েছে। স্ট্রোক এখন কম বয়সেও দেখা যাচ্ছে।

আরো পড়ুন : শিশুর রক্তশূন্যতা কেন হয়, জেনে রাখুন প্রতিকার

কম বয়সে স্ট্রোকের কারণ

স্ট্রোক দুই প্রকারের হয়। একটি মস্তিষ্কে রক্ত জমাট বেঁধে হয়, আরেকটি মস্তিষ্কে রক্তপাত হয়ে। দুই প্রকারের কারণও ভিন্ন। যেমন রক্ত জমাট বাঁধা স্ট্রোকের সঙ্গে ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, হাই কোলেস্টেরল, ধূমপান ঘনিষ্ঠভাবে জড়িত। যাদের এ সমস্যাগুলো থাকে, তাদের এ ধরনের স্ট্রোকের ঝুঁকি বেড়ে যায়। এখন অনেক কম বয়সে ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, হাই কোলেস্টেরল হওয়ার প্রবণতা দেখা যাচ্ছে, সে কারণে কম বয়সে অনেকেরই স্ট্রোকের ঝুঁকি বেড়ে যাচ্ছে।

আবার কিছু রোগ আছে, যেগুলোতে রক্ত ঘন ও জমাট বাধার প্রবণতা বেড়ে যায়। এদের মধ্যে কিছু রোগ জন্মগত ও বংশগত হতে পারে। সেসব রোগ অল্প বয়সেই প্রকাশ পায়। তাদের মস্তিষ্কে রক্ত জমাট বেঁধে স্ট্রোক হয়। কিছু রক্তরোগের জটিলতার কারণে স্ট্রোক যেকোনো বয়সেই হতে পারে। আবার কিছু রোগে রক্ত জমাট বাঁধার পর, সেই জমাট রক্ত ছুটে গিয়ে মস্তিষ্কে চলে যায়। হার্টের ভালভের রোগ, কিছু বাতরোগে এ রকম হয়।

মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ হয়ে যে স্ট্রোক হয়, সেটি বেশির ভাগ ক্ষেত্রে অনিয়ন্ত্রিত উচ্চরক্তচাপের কারণে। কিছু মাদকসেবনে এ রকম উচ্চ রক্তচাপ দেখা দিতে পারে। রক্তনালির বিভিন্ন গঠনগত পরিবর্তন ও জটিলতা থেকেও অল্প বয়সে স্ট্রোক হয়ে যায়। অনেকে পরিবারে এ রকম হিস্ট্রি থাকলে তাদের পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার প্রয়োজন হতে পারে।

অনেক রোগের জটিলতায় স্ট্রোক হয়। আবার কিছু রোগ স্ট্রোকের ঝুঁকি বাড়ায়, তা সে যে বয়সেরই হোক না কেন। সুতরাং স্ট্রোক যে কম বয়সে হতে পারে, সেটা সকলেরই মাথায় রাখা উচিত ও প্রয়োজনে একজন চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া উচিত।

এস/ আই.কে.জে/


স্ট্রোক

খবরটি শেয়ার করুন