রবিবার, ১৪ই জুলাই ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
২৯শে আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জিহ্বার রং বলে দেবে আপনি কোন রোগে আক্রান্ত

স্বাস্থ্য ডেস্ক

🕒 প্রকাশ: ১১:৫২ পূর্বাহ্ন, ১৭ই সেপ্টেম্বর ২০২৩

#

ছবি: সংগৃহীত

জিহ্বা দেখেই চিকিৎসকরা বলে দিতে পারেন কে কোন সমস্যায় ভুগছেন। এর কারণ হলো শরীরে কোনো রোগ বাসা বাঁধলে তার প্রভাব জিহ্বাতেও পড়ে। এক্ষেত্রে জিহ্বার রং বদলে যায়। একটি স্বাস্থ্যকর জিহ্বার আদর্শ রং হালকা গোলাপি। তবে এর চেয়ে বেশি হালকা, ধূসর, সাদা, লাল, হলুদ কিংবা বেগুনি দেখালে তা হতে পারে বিভিন্ন রোগের ইঙ্গিত। এই রঙের পরিবর্তনগুলো যদি কয়েক দিনের বেশি সময় ধরে চলতে থাকে তবে আপনাকে চিন্তা করতে হবে। ভারতের একজন আয়ুর্বেদ চিকিৎসক পূজা লুথরা সম্প্রতি তার ইনস্টাগ্রামে একটি রিল শেয়ার করেছেন। যেখানে জিহ্বার বিভিন্ন রং ও স্বাস্থ্যঝুঁকি সম্পর্কে তিনি নানা তথ্য জানিয়েছেন। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক, জিহ্বার রং বদলে যাওয়া কীভাবে বিভিন্ন রোগের ইঙ্গিত দেয়-

গোলাপি জিহ্বা

জিহ্বার প্রাকৃতিক রং হলো সামান্য সাদা আবরণসহ গোলাপি। এমন জিহ্বা থাকলে বুঝে নেবেন আপনি সম্পূর্ণ সুস্থ ও শরীর স্বাভাবিকভাবে কাজ করছে।

একটি সুস্থ জিহ্বায় ছড়িয়ে ছিটিয়ে ছোট ছোট মাংসল বাম্প থাকবে, যা জিহ্বাকে একটি মোটা টেক্সচার দেবে।

লুদ  জিহ্বা

একটি হলুদ জিহ্বা প্রায়ই পেটের সমস্যার সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত। হজম বা গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা থাকলে আপনার জিহ্বা হলুদ বর্ণের হবে।ইউএস ন্যাশনাল লাইব্রেরি অব মেডিসিনে প্রকাশিত একটি গবেষণায়ও দাবি করা হয়েছে, হলুদ জিহ্বা টাইপ ২ ডায়াবেটিসের লক্ষণ হতে পারে। আবার হলুদ জিহ্বা জন্ডিস এমনকি খারাপ মৌখিক স্বাস্থ্যবিধির কারণেও হতে পারে। এর অর্থ হলো আপনার জিহ্বায় ব্যাকটেরিয়া জমেছে।

সাদা বা ধূসর জিহ্বা

জিহ্বায় সাধারণত একটি সাদা আবরণ থাকে, তবে কিছু ধূসর অংশের সঙ্গে যদি এটি স্বাভাবিকের চেয়ে সাদা মনে হয় তাহলে বুঝবেন এটি শরীরে ইস্ট সংক্রমণের ইঙ্গিত দিচ্ছে। আবার ধূমপানের ফলে বা অন্যান্য তামাকজাত দ্রব্য সেবনের কারণেও জিহ্বায় সাদা দাগ লক্ষ্ করা যায়। যাকে বলা হয় লিউকোপ্লাকিয়া।

বেগুনি জিহ্বা

শরীরের রক্ত সঞ্চালন খারাপ হলে জিহ্বা বেগুনি হয়ে যায়। ফুসফুস বা হার্ট সম্পর্কিতবিভিন্ন সমস্যার কারণে অনুপযুক্ত রক্ত সঞ্চালন হতে পারে। দীর্ঘদিন ধরেই যদি জিহ্বার রং বেগুনি দেখেন তাহলে বুঝবেন আপনি হৃদরোগে ভুগছেন।

লাল জিহ্বা

একটি উজ্জ্বল লাল জিহ্বা সাধারণত ফোলা ও আঁশযুক্ত হয়। চিকিৎসকরা একে ‘স্ট্রবেরি জিহ্বা’ হিসাবে অভিহিত করেন। এটি প্রায়ই রক্তের ব্যাধি বা হার্টের সমস্যা নির্দেশ করে। ভিটামিন বি এর ঘাটতি বা স্কারলেট ফিভারের ইঙ্গিতও হতে পারে লাল জিহ্বা।

সূত্র: হেলথ শটস

এস/ আই. কে. জে/

রোগ জিহ্বা স্বাস্ত্য

খবরটি শেয়ার করুন