বৃহঃস্পতিবার, ২৫শে জুলাই ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
১০ই শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এমপি আনারের হাড়-মাংস আলাদা করা কসাই গ্রেফতার

নিউজ ডেস্ক

🕒 প্রকাশ: ১২:৪৫ অপরাহ্ন, ২৪শে মে ২০২৪

#

এমপির আনার হত্যাকাণ্ডের রহস্য বেরিয়ে আসছে এখনো। আনারের মরদেহ এখনো উদ্ধার হয়নি। কিন্তু এর মধ্যেই গ্রেফতার করা হয়েছে কয়েকজনকে। সবশেষ একজন কসাইকে গ্রেফতার করেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ সিআইডি।

সিআইডি বলছে, এমপি আনারকে হত্যার পর তার দেহ টুকরো টুকরো করে কেটেছে গ্রেফতারকৃত কসাই জিহাদ হাওলাদার। সে নিজেই বিষয়টি স্বীকার করেছে।

হত্যাকাণ্ডের তথ্যের খোঁজে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য জিহাদকে হেফাজতে নেওয়ার কথা ভাবছে তদন্তকারীরা। এজন্য জিহাদকে আজ শুক্রবার (২৪শে মে) আদালতে তোলা হবে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের  এক প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ঝিনাইদহ-৪ আসনের এমপি আনোয়ারুল আজীম আনারকে খুনের জন্য কসাই পেশায় থাকা জিহাদকে ভাড়া করেছিল খুনিরা।

পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য পুলিশ জানিয়েছে, জিহাদ হাওলাদার বাংলাদেশের নাগরিক। অবৈধভাবে মুম্বাইয়ে বসবাস করত। ঘটনার দুমাস আগে তাকে কলকাতায় নিয়ে আসে হত্যার পরিকল্পনাকারী শাহীন। তার পরই এমপি আনারকে খুনের পরিকল্পনা করা হয়। চারজন মিলে আনারকে খুন করে। সেখানেই তার দেহাংশ থেকে হাড় এবং মাংস আলাদা করা হয়।

টুকরো টুকরো করে কেটে প্লাস্টিকের ব্যাগে ভরা হয় দেহাংশ। প্লাস্টিক ব্যাগ নিয়ে ফ্ল্যাট থেকে বের হয় খুনিরা। বিভিন্ন গাড়িতে চড়ে কলকাতার বিভিন্ন প্রান্তে ঘুরে বেড়ায় তারা। কলকাতার একাধিক এলাকায় ফেলা হয় দেহাংশ।

গত ১২ই মে চিকিৎসার জন্য ভারতে যান আনার। ১৩ই মে তিনি হোয়াটসঅ্যাপে জানান, দিল্লি যাচ্ছেন। এরপর তার সঙ্গে আর যোগাযোগ করা যায়নি। এরপর কলকাতার পুলিশ জানায়, আজিম খুন হয়েছেন।

আনোয়ারুল আজীম ঝিনাইদহ-৪ আসনে আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য। তিনি ২০১৪, ২০১৮ ও ২০২৪ সালে টানা তিনবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

ওআ/ আই.কে.জে

ঢাকা

খবরটি শেয়ার করুন